কলকাতা পুরসভায়  কাউন্সিলরদের হাতাহাতিতে রণক্ষেত্র সভাকক্ষ
কলকাতা পুরসভায় কাউন্সিলরদের হাতাহাতিতে রণক্ষেত্র সভাকক্ষ

ছবি– অভীক পুরকাইত

ছবি– অভীক পুরকাইত
ছবি– অভীক পুরকাইত

অভীক পুরকাইত,কলকাতা:–ফের কলকাতা পুরসভায় কাউন্সিলরদের মধ্যে হাতাহাতি লেগে গেল। তৃণমূল ও বিজেপি কাউন্সিলরদের মধ্যে মারামারিতে ধুন্ধুমার কাণ্ড বেঁধে যায় পুরসভার অধিবেশন কক্ষে। দুই পক্ষের ঝামেলা থামাতে রীতিমতো হিমশিম খেলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম ।

জানা গেছে, এদিন পুরসভায় মাসিক অধিবেশন সেই অধিবেশন চলাকালীন তৃণমূল ও বিজেপি দুই দলের কাউন্সিলরদের মধ্যে বাকযুদ্ধ শুরু হয়। ঘটনা গড়ায় মারামারিতে। শনিবাসরীয় দুপুরে পুরসভার অন্ধরে যে ঘটনা ঘটল তা এককথায় বেনজির। অধিবেশন কক্ষে এমন ঘটনা আগে ঘটেছে কিনা তা অনেকেই মনে করতে পারছেন না।

এদিন অধিবেশন প্রথমে তৃণমূলের কাউন্সির অসীম বসুর সঙ্গে বচসা শুরু হয় বিজেপি কাউন্সির সজল
ঘোষের। তারপরই শুরু হয় হাতাহাতি। তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ধাক্কা দেওয়ার অভিযোগ তোলেন সজল। পাল্টা সজল ঘোষের বিরুদ্ধে গায়ে হাত তোলার অভিযোগ করেন তৃণমূল কাউন্সিলররা। এই ঝামেলার মধ্যেই ঢুকে পড়েন বিজেপির আরও দুই কাউন্সিলর বিজয় ওঝা।পরিস্থিতি সামাল দিতে আসরে নামতে বাধ্য হন ফিরহাদ হাকিম। দুই পক্ষকে বোঝানোর চেষ্টা করেন। অভিযোগ, সেই সময় বিজেপি কাউন্সিররা তাঁকে ধাক্কা দেন। কিছুক্ষণ ঝামেলার পর শান্ত হয়। অধিবেশন ছেড়ে বেরিয়ে যান চেয়ারপারসন মালা রায়। যদিও পরে তাঁকে বুঝিয়ে সুঝিয়ে ফিরিয়ে আনা হয়। অধিবেশন শুরু হলেও বিজেপি কাউন্সিলররা স্লোগান দিতে দিতে কক্ষ ত্যাগ করেন।

উল্লেখ্য, গত মাসে এমনই এক ঘটনার সাক্ষী ছিল কলকাতা পুরসভা। শ্যামপুকুর বিধানসভা এলাকার বাসিন্দা বিজেপি নেতা সুনীল সিংহের বাড়ির একাংশ বুলডোজার দিয়ে ভাঙার অভিযোগে পুরসভা সরগরম হয়ে ওঠে। তৃণমূল ও বিজেপি কাউন্সিলররা রীতিমতো হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 − three =