কোনরকম হিংসাকে বরদাস্ত করা হবে না বাংলায়, এমনই কড়া বার্তা দিলেন রাজ্যপাল
ভাঙ্গড়ে রাজ্যপাল,
ছবি- অভীক

অভীক পুরকাইত,ভাঙড়: মনোনয়নপত্র জমা দেয়া কে কেন্দ্র করে কার্যত অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি হয়ে উঠেছিল দক্ষিণ 24 পরগনার ভাঙড়। মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার দিন থেকেই কার্যত মুড়ি মুড়কি মতন এলাকায় পড়েছে বোমা। মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার কে কেন্দ্র করে অশান্তির ঘটনায় আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন। বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ছিল সেই শেষ দিনেও কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়ে ছিল দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ভাঙড়। এলাকায় বোমা ও গুলির আওয়াজ সকাল থেকেই শোনা যাচ্ছিল বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে একে অপরের বিরুদ্ধে মারধর ও বোমাবাজির করার অভিযোগ উঠে। এই অশান্তির ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে তিনজনের। রাজ্যের এই অশান্তির ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল রাজ্যপাল সি. ভি .আনন্দ বোস। শুক্রবার ভাঙড়ে বিভিন্ন সন্ত্রাস কবলিত এলাকাগুলি পরিদর্শন করলেন রাজ্যপাল। এর পাশাপাশি সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেন রাজ্যপাল। সাধারণ মানুষ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের মুখ থেকে বেশ কয়েকদিনের যে অশান্তির ঘটনা ঘটেছে সেই অশান্তির ঘটনা অতি মনোযোগ শোনেন শোনেন রাজ্যপাল। এরপর ভাঙড়ের ১ নম্বর ব্লকের বিডিও অফিসে যান রাজ্যপালপাল সেখানে গিয়ে বিডিও এর সঙ্গে কথা বলেন তিনি পাশাপাশি বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন তিনি। এরপরে দু’নম্বর ব্লকের বিডিও অফিসেও যান তিনি বিডিওর সঙ্গে দেখা করেন এবং তারপরে ভাঙড় কলেজের উদ্দেশ্যে রওনা দেন রাজ্যপাল সেখানে বেশ কিছুক্ষণ প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস। সমস্ত পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে কার্যত উদ্বেগ প্রকাশ করে রাজ্যপাল তিনি বলেন বাংলায় কোন প্রকার অশান্তি বরদাস্ত করা হবে না। ভারতীয় সংবিধানকে মর্যাদা দিতে হবে । এর পাশাপাশি সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছে রাজ্যপাল। পুলিশ প্রশাসনকে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার ও আদেশ দেন রাজ্যপাল। রাজ্যপাল ভাঙড়ে আসা দিনও এলাকায় বহু জায়গা থেকে উদ্ধার হয়েছে তাজা বোমা। কার্যত বারুদের স্তুপ এর উপর দাঁড়িয়ে রয়েছে ভাঙড়। এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনের পর মৃতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করার কথা রয়েছে রাজ্যপালের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

8 − three =