অভীক পুরকাইত– রবিবার 21শে মে বনগাঁ থেকে কলকাতায় ছুটে এলো মৌমিতা মজুমদার, ( সোনু ) মৌসুমী দত্তের কাছে,
মৌসুমী জানিয়েছেন গত দু মাস আগেই Instagram এ পরিচয় হয় বনগাঁর বাসিন্দা মৌমিতা মজুমদারের সাথে, তারপর থেকেই শুরু হয় হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাটিং।
জড়িয়ে পড়ে তারা প্রেমে তবে তাদের এই সম্পর্ক মানতে পারছে না তাদের পরিবার।
প্রসঙ্গত মৌমিতা মজুমদার বলেন আমি মৌসুমিকে ভালোবাসি,ওকে ছাড়া আমি বাঁচতে পারব না ,
জল ছাড়া যেমন গাছ বাঁচে না আমি মৌসুমিকে ছাড়া তেমনি আমি

ভালোবাসার টানে বনগাঁ থেকে কলকাতায় ছুটে এলো মৌমিতা মজুমদার
ভালোবাসার টানে বনগাঁ থেকে কলকাতায় মৌমিতা মজুমদার

বাঁচবো না,
আমি আমার ফ্যামিলিকে বলেছিলাম আমি ওর কাছে যাব কিন্তু তারা রাজি হননি।
তারা আমাদের সম্পর্ক মানবেনা,
তাই বাড়ি থেকে নীড় উপায় হয়ে পালিয়ে এসেছি।
এখন ওর পরিবার না মানলে আমরা দুজন অন্য কোথাও গিয়ে বসবাস করবো, আমরাদুজন দুজনকে গতকাল রাতেই মা কালীকে সাক্ষী রেখেমালা বদল করে তার স্মৃতিতে সিঁদুর তুলে আমি বিয়ে করেছি, আমরা জানি সমাজ আমাদের মানবে না,কিন্তু আমি ওর সঙ্গেই থাকতে চাই,বাঁচলেও ওর সঙ্গে মরলেও থাকবো ওর সঙ্গে,পুলিশ প্রশাসন যদি আমাদের মেরে ফেলতে চায় তাহলে আমাদের দুজনকে একসঙ্গে মেরে ফেলতে হবে।আর যদি বাঁচিয়ে রাখতে চায় তাহলে দুজনকেই রাখতে হবে,দুইনারীর বিয়েনারীর বিয়েনারীর বিয়েকে দুই পরিবারেই কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে।
সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে দুজনই জানিয়েছেন যদি কোন রকম বড় ধরনের বাধা আসে দুজন দুজনকে একসাথেই হাতে হাত রেখে লড়াই করব আমরা একে অপরকে ছাড়া বাঁচবো না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 − thirteen =